খাবার পর ক্ষতিকারক সাতটি কাজ Avoid 7 Things After Eating

জেনে নিন খাবার পর যে ৭ টি কাজ ভুলেও করবেন না….!

আমরা অনেকেই খাওয়ার পর পরই চা পান করি বা ঘুমাতে চলে যাই। বিশেষজ্ঞরা বলছেন খাওয়ার পরপর আমরা অনেকেই এমন কিছু কাজ করি যা স্বাস্থ্য সমস্যা বাড়িয়ে তোলে। তাই এসব থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তাঁরা। লাইফস্টাইল বিষয়ক ওয়েবসাইট ব্লুগেপ জানিয়েছে এ রকম কিছু অভ্যাসের কথা।


১. ধূমপান করবেন না:

বিশেষজ্ঞরা বলেন, খাওয়ার পর পরই একটি সিগারেট পান করাকে ১০টি সিগারেট পানের সঙ্গে তুলনা করা চলে। এতে ক্ষতিও হয় বেশি। তাই খাওয়ার পরপর সিগারেট খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

২.ফল খাবেন না:

খাওয়ার পর পরই ফল খাবেন না। কারণ এটি খাবারকে পাকস্থলিতে আটকে দেয় এবং অন্ত্রে পৌঁছুতে বাধা দেয়। তাই খাবার এক ঘণ্টা আগে বা পরে ফল খাওয়া উচিত, বিশেষ করে সকালে। কেননা এই সময় শরীর এর পুষ্টিকে বিশেষভাবে ব্যবহার করে এবং শক্তি জোগায়।

৩. চা পান করবেন না:

খাওয়ার পর পরই চা পান উচ্চ পরিমাণ এসিড তৈরি করে। এর ফলে খাবারের প্রোটিনকে দেহ ভালোভাবে গ্রহণ করতে পারে না। ফলে খাবার হজম করা কঠিন হয়ে পড়ে। তাই খাওয়ার এক ঘণ্টা পড়ে চা পান করুন।

৪. বেল্ট ঢিলে করবেন না:

সাধারণত আমরা পেট ভরে খাওয়ার পর প্যান্টের বেল্ট একটু ঢিলে করি। গবেষকরা বলেছেন, এই অভ্যাসটি ভালো নয়। বেল্ট লাগানো থাকলে নাড়ি চেপে থাকে। বেল্ট ঢিলা করা মানে আপনি আরো বেশি খাবার খাওয়ার জন্য সহজ হলেন।

৫. গোসল করবেন না:

অনেকে রয়েছেন যারা খাওয়ার পরপর গোসল করেন। গবেষকদের মতে, এই অভ্যাসও স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। এর ফলে হাত, পা ও শরীরের অন্যান্য অংশে রক্ত চলাচল বেড়ে যায়। এতে পাকস্থলির রক্ত চলাচল কমে যায়, এটি হজম শক্তিকে দুর্বল করে তোলে।

৬. সাথে সাথেই হাঁটবেন না:

খাওয়ার সাথে সাথে হাঁটলে এসিড রিফ্লাক্স হয়ে হজমকে ব্যাহত করে। খাওয়ার আধ ঘণ্টা বা এক ঘণ্টা পর ১০ মিনিট হাঁটা খুব উপকারি। সাউথ ক্যালিফোর্নিয়ার একদল গবেষক বলেন, এটি ক্যালোরি পোড়াতে সাহায্য করে।

৭.ঘুমাবেন না:

খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘুমানো একদম ঠিক নয়। এর ফলে খাবার ভালোভাবে হজম হয় না। গ্যাস্ট্রিক তৈরির একটি বড় কারণ এটি। এর কারণে পেটে সংক্রমণও হতে পারে।

Tags: হেলথ টিপস, লাইফ টিপস, লাইফ ষ্টাইল, ভাল থাকার উপায়, সাস্থ্য ভাল রাখার উপায়, সুস্থ্য থাকার উপায়, Life tips, Life style, Valo thakar upay, Shastho valo rakhar upay, Shustho thakar upay.